আমার ইতিহাসরাজনীতি

কংগ্রেস ও হিন্দুসমাজ

 

“প্র্রবাসী পত্রিকা” – ১৩৪৪ আষাঢ় – পৃষ্ঠা — ৪৫৯ – ৪৬০ –

কংগ্রেসের সহিত কোন ধর্মসম্প্রদায়েরই বিরোধ নাই। কংগ্রেস ইচ্ছাপূর্বক বা জ্ঞাতসারে কোন সম্প্রদায়ের ক্ষতিকর ও অকল্যাণকর কিছু করেন না। কিন্তু ইহা সত্য,  যেসকল প্রদেশে হিন্দুরা সংখ্যায় ন্যূন, সেখানে হিন্দুদের অসুবিধা, হিন্দুদের প্রতি অত্যাচার প্রভৃতির প্রতিকারের জন্য কংগ্রেস বিশেষ কিছু করেন না। আমরা যাহা জানি তাহা হইতে আমাদের ধারণা যেরূপ হইয়াছে তাহাই লিখিলাম। আমরা যদি ভ্রান্ত হই; সত্য সংবাদের  ও তথ্যের দ্বারা আমাদের ভ্রম কেহ দেখাইয়া দিলে আমরা বাধিত থাকিব।

অবস্থা এইরূপ হওয়ায় পঞ্জাব ও বঙ্গে হিন্দুর দুর্গতিতে বিষন্ন ও উদ্বিগ্ন অনেক হিন্দু, রাষ্ট্রীয় লক্ষ্য সম্বন্ধে কংগ্রেসের সহিত একমত হওয়া সত্ত্বেও, কংগ্রেসে যোগ দিতে চান না।  আমাদের বিবেচনায় তাঁহারা এরূপ না করিয়া কংগ্রেসের সহিত যুক্ত থাকিলে ফল অপেক্ষাকৃত ভালো হইবে। কংগ্রেসে হিন্দু স্বাজাতিক (nationalist) মত ও প্রভাব যথাসম্ভব প্রবল ও স্পষ্ট হওয়া উচিত। কংগ্রেসের গত করাচী অধিবেশনের ঠিক পূর্বে নিউ দিল্লী হইতে হিন্দু মহাসভার কার্য্যনির্বাহক কমিটি মহাসভার আদর্শ ও লক্ষ্য সম্বন্ধে যে বর্ণনাপত্র (manifesto) বাহির করেন, তদপেক্ষা অধিক গণতান্ত্রিকতা সম্মত ও স্বাজাতিকতাসম্মত ম্যানিফেস্টো কংগ্রেসও বাহির করেন নাই। সেই ম্যানিফেস্টো হিন্দু মহাসভা গ্রহণ করিয়াছিলেন এবং এ পর্যন্ত তাহা পরিবর্তন বা প্রত্যাহার করেন নাই। যে সকল হিন্দু ওই ম্যানিফেস্টোর আদর্শে বিশ্বাস করেন, কংগ্রেসের সভ্য হইতে তাঁহারা কোন বাধা অনুভব করিবেন না। তাঁহারা সকলে কংগ্র্রেসর সভ্য হইলে, জাগ্রত কর্মিষ্ঠ সভ্য হইলে; দেখিবেন কংগ্রেস হিন্দুর কল্যাণের প্রতি কখনও উদাসীন থাকিতে পারিবেন না।

 

Leave a Reply