June 24, 2021

সৌরশক্তি – এক অপার সম্ভাবনা

August 27, 2021

পোলিও মুক্ত দেশ!(?)

August 26, 2021

‘ইংরেজি টিংরেজি কিছু’

August 13, 2021

১৯৪২-র সেই ৯ই আগস্ট

September 29, 2022

শতবর্ষে মহেঞ্জোদাড়ো আবিষ্কার, অবহেলায় ধ্বংস হচ্ছে স্থাপত্য নিদর্শন

Recent Post

এক নজরে

কলমচিদের আড্ডাখানায়- ৩

(দ্বিতীয় পর্বের পর) ১৪ নম্বর পার্শিবাগানে রাজ শেখর বসুর দাদা ডা. গিরীন্দ্রশেখর বসুর বাড়িতে বসতো উৎকেন্দ্র সমিতির বৈঠক। সদস্যদের মধ্যে ছিলেন রায় বাহাদুর জলধর সেন, রাজ শেখর বসু, গিরীন্দ্রশেখর বসু, যতীন্দ্র কুমারসেন,কেদারনাথ চট্টোপাধ্যায়, ব্রজেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ। বিরিঞ্চিবাবা নামক গল

সম্পাদকীয়

“….দুর্বলেরে রক্ষা করো, দুর্জনেরে হানো, নিজেরে দীন নিঃসহায় যেন কভু না জানো।”… – কবির ভাষায় আপ্তবাক্য হলেও রাষ্ট্রীয় স্বাধীনতার ৭৫ বছরে জাতীয় জীবনে দুর্বলকে রক্ষা করা, দুর্জনকে আক্রমণের বীজমন্ত্র পর্যবসিত হয়েছে বিপরীতে।…..দুর্বলের উপর অত্যাচার ও সবল দুর্জনের স্তাবকতাই একমাত্র লক্ষ্য আজ এই সমাজ ব্যবস্থায়। যা হওয়ার কথা ছিলোনা ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদের মূলোচ্ছেদে ব্যস্ত দধীচিদের পথানুসারে, তাই আজ একমাত্র রূঢ় বাস্তব। সশস্ত্র বিপ্লবীদের রক্তে ভিজেছিল যে রাজপথ তা আজ শুষ্ক, অত্যাচারিত ও লাঞ্চিত মানুষের চোখের ন্যায়। যে সীমাহীন পতন দৃষ্ট হয় প্রতিনিয়ত, ব্যক্তি মানুষের চিন্তায় ও কর্মে তা দেখে স্তম্ভিত হতে হয়। অথচ সমালোচনা ও আস্ফালনের বিরাম নেই। পার্শ্ববর্তী দেশে যদি ঘটে সীমাহীন নির্যাতন তো মৃদু বক্তব্য রেখে নিস্তব্ধতা বজায় রাখতেই ব্যস্ত হয়ে পড়ে প্রায় সকলে। ব্যতিক্রম নিশ্চয়ই আছে; কিন্তু সেই ব্যতিক্রম এতো স্বল্প যে দৃষ্টিগোচর হয় না সহসা। তবুও, সকলের স্বার্থে সেই ব্যতিক্রমীদেরই সচেষ্ট হতে হয় ন্যায়ের জন্য; কালক্রমে তাঁরাই হয়ে ওঠেন ইতিহাসের চালিকাশক্তি। আগামী রাষ্ট্রও নির্ভরশীল থাকে তাঁদের উন্নত চিন্তা, বক্তব্য ও কর্মধারার উপর। নতুবা গয়ংগচ্ছতার পঙ্কিল আবর্তে জাতি বিভ্রান্ত হবে পুনরায়।

অদৃষ্ট নির্ভর করে পুরুষাকারের উপর। তাই ধর্মশাস্ত্রে বর্ণিত পুরুষাকারই হোক একমাত্র ধ্যেয়।

“ওঁম তেজো অসি তেজময়ী দেহি।
           ওঁম  বীর্যম্ অসি বীর্যময়ী দেহি।।”…..