শাশ্বত সনাতন

কালোর উপাসনা

– কল্যাণ গৌতম


সাদা যদি কালো হও, ফিরো না কোনোদিন

আলো, বোধ, জ্বালানোর বাতি।
অসুর দলনে দুর্গা হয়েছো মহাকালী
ছিন্নমস্তা ছাড়া ফিরিবার পথ কোথা?
শত্রু মেরে দিয়েছো যে ছিন্নমাথা, কেশ।

যুদ্ধের আয়োজন সমাপ্ত হল।
বউ খেলেছে সিঁদুর, দশমীতে সেরেছো প্রণাম,
ফেরা না-ফেরা মহাকালই জানে।
তবুও তুমি কালো, ভয়ঙ্কর বিষাক্ত নাগ
বর্বর চাড্ডি, দুনিয়ার বিষাক্ত ছত্রাক
তবুও কালাচ মারো, মারো; হে মোর শঙ্খচূড়।

গর্জ গর্জ ক্ষণং মূঢ়/ মধু যাবৎ পিবাম্যহম।
জয় মা কালী, জয় বাঙালি।
দেবীর খাদ্য লাল, চক্ষু লাল, মৃৎপাত্রও লাল
ভেঙেছে সীমান্ত, কেটেছে রক্তখাল।
অসংখ্য যোনি জুড়ে শক্তির দলা তুমি;
মৃত্যুরে করেছি তাই দৃঢ়প্রতিজ্ঞা।

হে মহাকাল, হে অ-শুভ্র দেবতা
ভয় নেই, চাই নি তো বক হয়ে মরা।
তার চেয়ে ঢের ভালো জলন্ত অঙ্গার;
অসংখ্য মৃত্যুরে পার হয়ে অপূর্ব সংহার।
নিশা এলো, এলোকেশী, ভাঙো রে মিনারের বাতি;
তোর বলে, তোর দলে লেনদেন রাখা নেই
হে মৃত্যুরূপা সাথী।

Leave a Reply